রাজধানীর জলাবদ্ধতার অন্যতম কারণ অবৈধ পলিথিনের




রাজধানীর জলাবদ্ধতার অন্যতম কারণ অবৈধ পলিথিনের

স্টার বাংলা ডেস্ক : নিষিদ্ধ পলিথিনে নর্দমা ভরাট হয়ে জলাবদ্ধ হয়ে পড়ছে ঢাকার মহানগরী, ভরাট হচ্ছে নদীনালা। পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর এই পলিথিন সম্মের্কে ক্রেতা ও বিক্রেতারা এখনো অসচেতন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পলিথিনের ব্যবহার এভাবে চলতে থাকলে বড় ধরনের পরিবেশ বিপর্যয়ের মুখোমুখি হবে দেশ।

ঢাকার প্রাণ বুড়িগঙ্গা কালের পরিক্রমায় এখন বেহাল দশা। কেন মৃত্যুর পথে এই বুুড়িগঙ্গা? রাজধানীবাসীর ব্যবহার করা কোটি কোটি পলিথিন প্রতিদিন গিয়ে পড়ছে বুড়িগঙ্গায়। যার ফলে ৩ দশকে নদীর তলদেশে জমা হয়েছে ৮/১০ ফুট পুরু স্তর। এর ফলে সূর্যের আলো পৌঁছায়না মাটিতে। যার ফলে বুড়িঙ্গাকে দিন দিন মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাওয় যাচ্ছে।

রাজধানী ঢাকার জলাবদ্ধতার অন্যতম কারণ, প্রচুর পলিথিন ব্যবহার। যার ফলেই ঢাকা প্রাণ বুড়িগঙ্গারও মরতে বসেছে।

এমতাবস্থায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সহিদ আকতার হুসাইন বলেন, বুড়িঙ্গাসহ সারা দেশের সবগুলো নদী এবং খালগুলো বাঁচাতে হলে বন্ধ করতে হলে পলিথিনের ব্যবহার।

তিনি আরও বলেন, এই সকল পলিথিন পোড়ালে বাতাসের মিসে ক্ষতিকর গ্যাস। আর পলিথিন না নষ্ট হওয়ায় কমে যাচ্ছে মাটির উৎপাদন ক্ষমতা। এছাড়াও পলিতে মোড়ানো খাবার খেলে ক্যান্সার ও চর্মরোগ হওয়ার সম্ভাবনাও থেকেই যায় বলে জানালেন তিনি।

এত কিছুর পরেও রাজধানীসহ ব্যবহার হচ্চে সারাদেশে পলিথিন ব্যবহার হচ্ছে সকল কাজে।

উৎপাদন বন্ধ আর বিকল্প ব্যাগের ব্যবস্থা করতে পারলে ঠকানো যাবে এই নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যবহার। এতে বাঁচবে পরিবেশ সুস্থ্য থাকবে মানুষ।