সৌদি জোটের শর্ত মানা সম্ভব নয়: কাতার




সৌদি জোটের শর্ত মানা সম্ভব নয়: কাতার

অান্তজাতিক ডেস্ক: সম্পর্ক পুনর্গঠনে কাতারকে দেওয়া সৌদি জোটেরশর্ত মানা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন কাতারেরপররাষ্ট্র মন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমানআল থানি দোহায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনিবলেন, সৌদি জোটের দেওয়া শর্তগুলো খুবইঅবাস্তব মানা অসম্ভব

জঙ্গিবাদে সমর্থনের অভিযোগ এনে গত জুনকাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদিআরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন এবংমিসরসহ কয়েকটি দেশ অভিযোগকেভিত্তিহীনউল্লেখ করে তা নাকচ করে দেয় দোহা কূটনৈতিকসম্পর্ক ছিন্ন করার দুই সপ্তাহ পর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারেরজন্য আল জাজিরা বন্ধ করে দেওয়াসহ কাতারকে ১৩দফা শর্ত বেঁধে দেয় চার দেশ শর্ত পূরণে ১০ দিনেরসময়সীমা দেওয়া হয় সে সময়সীমা শেষ হওয়ার পর জুলাই রবিবার সেই সময়সীমা দুই দিন বাড়ানোর কথাজানায় সৌদি সূত্র

মঙ্গলবার শেষ হয় সেই বর্ধিত দুই দিন। কুয়েতকে শর্তের জবাব দেওয়ার পর পররাষ্ট্রমন্ত্রী আল-থানি জানান, ‘এটা আসলে সন্ত্রাসবাদের বিষয় না এটাবাকস্বাধীনতার উপর হস্তক্ষেপ।’ মধ্যস্থতাকারী দেশকুয়েতকে জবাবে দিয়েছেন শেখ মোহাম্মদ তবে সেবিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। 

তিনি বলেন, এই শর্ত মানা সম্ভব না হলেও সংলাপেরমাধ্যমে এই সংকট সমাধান করতে চায় কাতারসংকটের শুরু থেকেই কাতার এর সমাধানের চেষ্টাচালিয়ে যাচ্ছে

কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল-আহমদ আল-জাবের আল-সাবাহ দোহার সঙ্গে সৌদি জোটের বিরোধ নিরসনে অন্যতম মধ্যস্থতাকারী হিসেবে ভূমিকা পালন করছেন। সোমবার ১৩ দফা শর্তের ব্যাপারে নিজেদের অবস্থান জানাতে কুয়েত যান কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। দেশটির আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানির লেখা চিঠিটি কুয়েতের আমিরের কাছে হস্তান্তর করেন তিনি। তবে কাতারের আমিরের পক্ষ থেকে উপস্থাপনকৃত চিঠিতে কী লেখা আছে তা এখনও জানানো হয়নি।